ভেষজ উদ্ভিদের ব্যবহার ও সমাজ-সংস্কৃতির ওপর প্রভাব নিয়ে ওয়েবনার

জে মাহাতো, আমাদের ভারত, মেদিনীপুর, ২০ সেপ্টেম্বর: ভেষজ উদ্ভিদের ব‍্যবহার এবং সমাজ ও সংস্কৃতিতে তার প্রভাব বিষয়ক অনলাইন আলোচনা চক্র অনুষ্ঠিত হল খেজুরি কলেজের উদ্যোগে। করোনার কারণে বন্ধ রয়েছে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়। বন্ধ শ্রেণিকক্ষের স্বাভাবিক পঠন-পাঠন প্রক্রিয়া। তবুও এই পরিস্থিতিতে অনলাইনের সুযোগকে ব‍্যবহার করে বিভিন্ন স্তরে যেমন পঠন-পাঠনের কিছু চেষ্টা চলছে তেমনি বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সেমিনার বা ওয়েবনার সংগঠিত হচ্ছে।

এই প্রক্রিয়ায় সঙ্গে তাল মিলিয়ে সম্প্রতি বিদ‍্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্গত পূর্ব মেদিনীপুরে খেজুরি কলেজের উদ্যোগে একটি গুরুত্বপূর্ণ ওয়েবনার অনুষ্ঠিত হল।খেজুরি কলেজের উদ্ভিদবিদ্যা ও নৃতত্ত্ব বিভাগ এবং আইকিউএসি- এর যৌথ উদ্যোগে একদিনের একটি জাতীয় ওয়েবনার অনুষ্ঠিত হয়। ওয়েনারের বিষয় ছিল,”করোনা পরিস্থিতিতে ভেষজ গাছের অবদান ও ব্যবহার”। মুখ্য আলোচক ছিলেন বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা ও বনবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক উদ্ভিদবিজ্ঞানী ড: অমলকুমার মন্ডল এবং ছত্তিশগড়ের গুরুঘাসি দাস বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃতত্ত্ব এবং আদিবাসী উন্নয়ন বিভাগের অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর নীলকান্ত পানিগ্রাহী।

অমলবাবুর আলোচনার বিষয় ছিল করোনা পরিস্থিতিতে রোগপ্রতিরোধ বৃদ্ধির বিষয়ে আলোকপাত করা। এই পরিস্থিতিতে কিভাবে ভেষজ উদ্ভিদের কিভাবে ব্যবহার করা যায়, যা থেকে মানুষ পরিস্থিতির আশু পরিবর্তন সম্ভব। কারণ, আমাদের দেশে এখনও বাড়ির আশপাশেও ভেষজ উদ্ভিদ রয়েছে। ফলে মানুষকে একটু বোঝাতে সক্ষম হলেই তাঁরা সহজেই তা ব্যবহারও করতে পারবেন। অমলবাবু অশ্বগন্ধা, কালমেঘ, আদা, রসুন, নীম, তুলসি সহ অন্যান্য ভেষজ উদ্ভিদের কথা তাঁর বক্তব্যে তুলে ধরেন। পাশাপাশি শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে ধূমপান না করা, মদ‍্যপান না করা, মানসিক চাপ কমানো ও পর্যাপ্ত ঘুমের প্রয়োজনীতার মতো বিষয়গুলোর উপরেও গুরুত্ব আরোপ করেন।

নীলকান্তবাবুর বিষয় ছিল, করোনা পরিস্থিতিতে সামাজিক এবং সংস্কৃতির ওপর কী প্রভাব পড়ছে তা নিয়ে আলোচনা। সেমিনারের উদ্বোধন করেন কলেজের অধ্যক্ষ ড: অসীমকুমার মান্না। উপস্থিত ছিলেন আইকিউএসির কো-অর্ডিনেটর ডঃ গৌতম দন্ডপাট, কলেজের ইংরেজি বিভাগের প্রধান ড: রঞ্জিত সেনগুপ্ত, উদ্ভিদ বিভাগের অধ্যাপক রঘুনাথ ভুঁইঞা। পরিচালনা করেন অধ্যাপক ডঃ রণজিৎ সেনগুপ্ত। সেমিনারের শেষে ছিল প্রশ্নোত্তর পর্বও। অনলাইনে সম্প্রচারিত এই ওয়েবনারে প্রায় দুই শতাধিক শিক্ষার্থী, গবেষক অধ্যাপক-অধ‍্যাপিকা এই ওয়েবনারে অংশ নেন। ছাত্রছাত্রী, গবেষক থেকে শিক্ষক-শিক্ষিকা সকলেরই নানা প্রশ্নের উত্তর দেন অমলবাবু ও নীলকান্তবাবু। সমগ্র অনুষ্ঠানটি ইউটিউবেও সম্প্রচার করা হয়েছে। যাতে সাধারণ মানুষ তা দেখে উপকৃত হতে পারেন​।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here