অবিশ্বাস্য! গঙ্গায় মাছ ধরতে গিয়ে জালে উঠল স্কুটি

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদিয়া, ১২ আগস্ট: ভরা গঙ্গায় সাত সকালে জাল ফেলেছিলেন বড় আশা করে রুই কাতলা উঠবে বলে। কিন্তু মাছের বদলে উঠল আস্ত একটা স্কুটি। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে চৈতন্যভূমি নবদ্বীপে। বুধবার কাক ভোরে নবদ্বীপ গৌরাঙ্গ সেতুর উত্তর পূর্ব প্রান্তে জাল ফেলেছিলেন মৎস্যজীবী রণজিৎ মাঝি। তারপর জাল টানতেই ভারি কিছু টের পেতেই চোখ চিক চিক করে ওঠে তার। ভাবলেন বড় কোনও রুই বা কাতলা বেঁধেছে তার জালে। কিন্তু এতটাই ভারি যে তার একার পক্ষে জাল টেনে তোলা দুস্কর হয়ে ওঠে। শেষ পর্যন্ত অন্য মৎস্যজীবীদের সাহায্য নেন রণজিৎ বাবু। অন্য মৎস্যজীবীদের সাহায্যে গঙ্গার ১৫ – ২০ ফিট নিচ থেকে জাল টেনে নদীর উপরে তুলতেই, রণজিৎ মাঝি সহ অন্যান্য মাঝিদের চক্ষু চরক গাছ। রুই কাতলার বদলে উঠে এল আস্ত একটি স্কুটি। এ কথা জানাজানি হতেই ঘটনাস্থলে ভিড় জমাতে শুরু করে স্থানীয় মানুষজন। খবর দেওয়া হয় স্থানীয় পুলিশকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় নবদ্বীপ থানার পুলিশ।

নবদ্বীপ থানার ভর পাড়ার বাসিন্দা পেশায় মৎস্যজীবী রণজিৎ মাঝি জানান, অন্যান্য দিনের মতো এদিনও গৌরাঙ্গ সেতুর উত্তর দিকে মাছ ধরার জন্য ঢোল জাল পেতে ছিলাম। পরে ওই জাল টানতেই ভারী কিছু জালের দড়িতে বাঁধে। একার পক্ষে টেনে তোলা সম্ভব না হওয়ায় অন্য মৎস্যজীবীদের সাহায্য নিতে হয়। সবাই মিলে বহু কষ্টে জাল নদীর পাড়ে তুলতেই, দেখি কোনও মাছ নয়, জালে বেঁধেছে একটি স্কুটি। পরে ভাগিরথী থেকে উদ্ধার হওয়া স্কুটিটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায় পুলিশ। পাশাপাশি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে কি ভাবে ভাগীরথী নদীতে এই স্কুটিটি এল।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here