গতির লড়াইয়ে জিতবে কে? মুম্বই না দিল্লি

আমাদের ভারত, ১০ নভেম্বর : একটা দলের সামনে পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ, অন্যদিকে আরো একটি দল প্রথমবারের জন্য আইপিএল ট্রফি জিতে নেওয়ার সুযোগ হাতছাড়া করতে চায়না। প্রায় দেড় মাস ধরে চলা এই আইপিএল ২০২০ ফাইনালে মঙ্গলবার দুবাই ইন্টার্নেশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হচ্ছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স দিল্লি ক্যাপিটাল। লিগ পর্বের খেলায় হাড্ডাহাড্ডি লড়াই দেখা গিয়েছিল। কোন কোন দল প্লে অফে পৌঁছাবে আগে থেকে অনুমান করা যায়নি। প্রত্যেকটি দলই কিছু না কিছু অঘটন ঘটিয়েছে।
চলতি আইপিএলে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স তিনবার দিল্লি ক্যাপিটালসের মুখোমুখি হয়েছে। তিনবারই মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের কাছে পরাস্ত হয়েছে দিল্লি। ফলে মানসিক ভাবে কিছুটা হলেও এগিয়ে মাঠে নামছে রোহিত শর্মার মুম্বই। অন্যদিকে তিন-তিনটে হারের বদলা নিতে দুবাই এর মাঠেএক ইঞ্চিও জমি ছাড়বে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে দিল্লির অধিনায়ক শ্রেয়াস আয়ার। মাঠে নামার আগে শ্রেয়াস আইয়ার বলেন মুম্বাই এর কাছে হেরে যা আমাদের কাছে অতীত অতীত ফাইনালে আমরা এক ইঞ্চি জমিও ছাড়ব না অন্যদিকে মুম্বাই অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন দিল্লি প্রথমবার ফাইনাল খেলছে। তাই ওরা বাড়তি অনুপ্রেরণা নিয়ে মাঠে নামবে। মাঠে সঠিক সময়ে আসল কাজটি করতে হবে প্রত্যেক খেলোয়াড়কে সেই কথা স্মরণ করিয়ে দেওয়া হয়েছে।
মুম্বইয়ের সবথেকে বড় অস্ত্র তাদের পেস বোলিং অ্যাটাক।যশপ্রীত বুমরা,ট্রেন্ট বোল্ট ও জেমস প্যাটিনসনের গতির সামনে ছারখার হয়ে যাচ্ছে বিপক্ষের ব্যাটসম্যানরা। ব্যাটিং এ মিডল অর্ডারে ঝোড়ো ব্যাটিং করছেন পোলার্ড, পান্ডিয়ারা। তবে দিল্লি তাকিয়ে রাবাডা, আনরিখ নোখিয়া ও মার্কাস স্টোয়নিসের দিকে। এছাড়া হেটমায়ারের মারমুখী ব্যাটিং রোহিতদের পরিকল্পনা ভেস্তে দিতে পারে।

তবে দিল্লির বিরুদ্ধে প্রথম কোয়ালিফায়ারে চোট পেয়েছিল ট্রেন্ট বোল্ট। চোট সারিয়ে ফাইনালে খেলার তার সম্ভাবনা আছে। খাতায় কলমে মুম্বইকে এগিয়ে রাখছে ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। তবে দিল্লির কোচ রিকি পন্টিং হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘আমরা এখনো কিছুই জিতিনি। আমরা এসেছি আইপিএল জিততে ‘।
তবে পিচের চরিত্র নিয়ে দুই দলই কিছুটা ধন্দে আছে। ইয়র্কার ও স্লো ডেলিভারি ম্যাচের রঙ যে কোন মুহুর্তে বদলে দিতে পারে৷ প্রস্তুত বেগুনি টুপির লড়াইয়ে রাবাডা (১৬ ম্যাচে ২৯ উইকেট ) ও যশপ্রীত বুমরা (১৪ ম্যাচে ২৭ উইকেট )।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here