“ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে কে? সময় এলেই জানতে পারবেন,” পার্থর সুরে সুর মিলিয়ে ঘাড় ঘুরিয়ে উত্তর অর্পিতার

আমাদের ভারত, ৩ আগস্ট: একাধিক জায়গা থেকে উদ্ধার হওয়া এই বিপুল টাকা তাদের নয়। তারা ষড়যন্ত্রের শিকার। সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে একথা বলেছিলেন রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এদিকে অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ও আগে বলেছিলেন এই বিপুল টাকা তার নয়। আজ বুধবার আদালতে হাজির হওয়ার আগে আবারও একই কথা বললেন অর্পিতা। সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে অর্পিতার উত্তর সময় এলেই জানতে পারবেন।

এর দিন কয়েক আগে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় প্রবল কান্নায় ভেঙে পড়ে হাত পা ছুড়তে দেখা গিয়েছিল অর্পিতাকে। একরকম অজ্ঞান হয়ে পড়েছিলেন তিনি। কিন্তু বুধবার সেই অর্পিতাকেই দেখা গেল সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের উত্তরে একেবারে ঘাড় ঘুরিয়ে উত্তর দিতে। তার চারপাশে কড়া নিরাপত্তা থাকলেও তিনি উত্তর দিয়েছেন সংবাদমাধ্যমের প্রশ্নের। আজ আদালতে পেশ করার আগে অর্পিতা মুখ খুলেছেন সংবাদমাধ্যমের সামনে।

তবে আজ সম্পূর্ণ চুপ করে থেকেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। যদিও তিনি আগেই বলেছিলেন, “আমার কোনো টাকা নেই। আমি ষড়যন্ত্রের শিকার”। এরপর তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল কার ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছেন তিনি? তার উত্তরে পার্থ বলেছিলেন সময় এলেই জানতে পারবেন। এবার অর্পিতার মুখেও কার্যত একই কথা শোনা গেল।

প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি ইডির তদন্তে আস্থা রাখছেন তারা। পার্থ অর্পিতা ছাড়াও এই টাকার সঙ্গে যুক্ত আরও বেশকিছু নাম উঠে আসার অপেক্ষা করছেন তারা?

এদিন ব্যাঙ্কশাল কোর্টে পেশ করার আগে জোকা ইএসআই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল পার্থ অর্পিতাকে। আদালতের নির্দেশে হেফাজতে থাকা কালীন ৪৮ ঘন্টা অন্তর তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়েছে। সেই পরীক্ষার রিপোর্টে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন নার্ভাস ব্যাকগ্রাউন্ড হয়েছিল অর্পিতার। জেরার মুখে তিনি ভেঙে পড়েছিলেন। কিন্তু মানসিক ভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি মানসিকভাবে শক্ত বলেই জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here