“এবার কি করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য প্রধানমন্ত্রীকে দায়ী করবে তৃণমূল?” কটাক্ষ শমীকের

রাজেন রায়, কলকাতা, ২৪ অক্টোবর: নির্বাচনের সময়ে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার জন্য বিজেপিকে দায়ী করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু করোনা অনেকটা নিয়ন্ত্রণে চলে আসার পরেও পুজোর পরেই হু হু করে বাড়তে শুরু করেছে সংক্রমণ। এ নিয়ে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে একহাত নিল বিজেপি। রাজ্যের বিরোধী দলের দাবি, করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ তৃণমূল সরকার। আবার নিজেদের ব্যর্থতার দায় তারা কেন্দ্রের দিকে ঠেলতে পারেও বলে কটাক্ষ করলেন রাজ্য বিজেপি মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য।

রবিবার সাংবাদিক বৈঠক শমীক ভট্টাচার্য মন্তব্য করেন, ‘রাজ্যে নতুন করে যে ভাবে করোনা দেখা যাচ্ছে, হতে পারে, ক’দিন পরে তৃণমূল কংগ্রেস বলবে যে এর জন্য প্রধানমন্ত্রী দায়ী’। করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাজ্য সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, দুর্গাপুজোর সময় মন্ত্রীদের উপস্থিতিতে জনপ্লাবন সবাই দেখল। স্বাভাবিক ভাবে চিকিৎসকরা যা আশা করেছিলেন তাই হচ্ছে।

একই সঙ্গে তাঁর কটাক্ষ, সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে যে রাজনৈতিক দল হাজার হাজার মানুষকে গৃহহীন করে, এত মানুষকে খুন করে বাড়িতে আগুন দেয় পুকুরে বিষ মিশিয়ে দেয়। তারা এমন করতে পারে।‌ এদিকে এদিন করোনা পরিস্থিতি নিয়ে শিলিগুড়ি থেকে মন্তব্য করতে শোনা গিয়েছে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রীকে। তিনিও পরোক্ষে মেনে নেন যে উৎসবের মরসুমে কিছুটা হলেও করোনা বৃদ্ধি পেয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায়, আমরা উৎসবের আনন্দে মাতোয়ারা হয়েছি। তার পর ভুলে গিয়েছি। ভুলে যাওয়া ভাল। তবে নিয়ন্ত্রণে থাকতে হবে। তিনি দাবি করেন রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি এখনও নিয়ন্ত্রণেই রয়েছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here