বেতন বৃদ্ধির দাবিতে কাজ বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখালেন উত্তর ব্যারাকপুর পৌর সভার অস্থায়ী শ্রমিকরা

আমাদের ভারত, ব্যারাকপুর, ২৯ নভেম্বর: সপ্তাহের প্রথম দিনেই উত্তর ব্যারাকপুর পৌরসভার ৬০০ জন অস্থায়ী সাফাই কর্মী কাজ বন্ধ করে পৌর সভার সামনে বিক্ষোভ দেখালেন। দীর্ঘদিন ধরে তাদের বেতন বৃদ্ধি হচ্ছে না এবং অস্থায়ী শ্রমিকদের স্থায়ীকরণের দাবিতে এদিন তারা শ্রমিকরা বিক্ষোভ দেখান।

অন্যান্য দিনের মত পৌরসভার স্থায়ী কর্মীরা কাজে যোগ দিতে এসে দেখেন পৌর সভার গেট আটকে বিক্ষোভ করছেন অস্থায়ী কর্মীরা। সাফাই কর্মীদের এই আন্দোলনের ফলে সকাল সকাল বন্ধ হয়ে যায় পৌরসভার কাজ কর্ম। এদিন এই আন্দোলন সম্পর্কে অস্থায়ী কর্মীরা বলেন, “আমরা অস্থায়ী কর্মী আমাদের বেতন বৃদ্ধির কথা বলা হলেও বহু দিন ধরে বেতন বৃদ্ধি করা হয়নি সেই কারণেই আন্দোলনের পথে যেতে বাধ্য হয়েছি। সেই সঙ্গে আমাদের স্থায়ী করার প্রতিশ্রুতি দিলেও আমরা দীর্ঘ দিন কাজ করে চলেছি কিন্তু আমরা এখনও স্থায়ী কর্মী হতে পারিনি আমাদের অস্থায়ী কর্মী করে রাখা হয়েছে।

অপরদিকে উত্তর ব্যারাকপুর পৌরসভার পৌর প্রশাসক মন্ডলীর সদস্য সঞ্জীব সিংয়ের বক্তব্য পৌরসভার অস্থায়ী সাফাই কর্মীদের দাবিদাওয়া নিশ্চয়ই তারা খতিয়ে দেখবেন এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন। তবে কাজ বন্ধ করে বিক্ষোভ দেখানোর কথা জানতে পেরেই পৌরসভায় ছুটে যান উত্তর ব্যারাকপুর পৌর সভার মুখ্য পৌর প্রশাসক। সমস্যা সমাধান করার জন্য তিনি এসে শ্রমিকদের সাথে কথা বলেন। এদিন শ্রমিকদের সাথে কথা বলার পর তিনি সাংবাদিকদের বলেন, “অন্যান্য পৌরসভার থেকে আমাদের এই পৌর সভার স্থায়ী ও অস্থায়ী কর্মীদের বেতনের পরিমাণ বেশি। তাই এর থেকে আর বেতন বাড়ানো এই মুহূর্তে সম্ভব না। তবে ওনাদের আর যা দাবি আছে সেগুলো সরকারি নিয়ম মেনে যদি মানা সম্ভব হয় আমরা নিশ্চয়ই মেনে নেবো। সেই বিষয়ে আমরা আগামী দিনে আলোচনা করবো। তবে কাজ বন্ধ রেখে গেট আটকে কোনও আন্দোলন আমাদের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মেনে নিতে বলেন না তাই আমরা ওদের গেট ছেড়ে, বিক্ষোভ বন্ধ করতে আবেদন করেছিলাম, যাতে কাজ শুরু হয়। আপাতত ওনারা ওনাদের বিক্ষোভ তুলে নিয়েছেন।”

উত্তর ব্যারাকপুর পৌর সভার পৌর প্রশাসক মন্ডলীর সাথে আলোচনার পর বিক্ষোভ তুলে নেন আন্দোলনকারী শ্রমিকরা।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here