তৃণমূল থেকে এসে বিদ্যার্থী পরিষদের নেতা হওয়া যাবে না, মুকুল ঘনিষ্ঠকে বুঝিয়ে দিল সংঘ

নীল বনিক, আমাদের ভারত, কলকাতা, ৭ জুলাই: এবিভিপিতে বেনোজল আটকাতে তৎপর হল সংঘ। সম্প্রতি তৃণমূল থেকে আসা এক ছাত্রনেতা এবিভিপিতে পদ পাওয়ার ব্যাপারে আগ্রহী হয়েছিলেন। মুকুল ঘনিষ্ঠ ঐ ছাত্র নেতা তৃণমূল ছাত্রপরিষদের একসময়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত ছিলেন। বিদ্যার্থী পরিষদে নাম লেখাতে দিল্লিতে কয়েকজন নেতার কাছে দরবার করেছিলেন। যা কানে যায় রাজ্যের সংঘ নেতাদের। তারপরেই কেশব ভবন থেকে বলা হয় তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আসা নেতাদের কোনও জায়গা নেই সংঘের ছাত্র সংগঠনে। সংঘ নেতারা তাঁকে পরিস্কার জানিয়ে দিয়েছেন বিজেপি আর সংঘ এক নয়। বিদ্যার্থী পরিষদে নেতৃত্ব দিতে গেলে মতাদর্শ প্রয়োজন। মতাদর্শগত ভাবে আগে সংঘকে জানতে হবে, না হলে সংঘের শাখা সংগঠনে করা যাবে না।

এবিভিপির রাজ্য নেতাদেরও কেশব ভবন থেকে বার্তা দেওয়া হয়, তৃণমূলের বেনোজল সংগঠনে নেওয়া যাবে না। কলকাতা হোক বা জেলা সব জায়গার ক্ষেত্রে তা প্রযোজ্য। এবিভিপি সূত্রের খবর, বিজেপির তরুন নেতাকে মুকুল রায়ের উদাহরণ দিয়েও বোঝানো হয়েছে। মুকুল রায়ের সাংগঠনিক ক্ষমতাকে গুরুত্ব দিয়েছে বিজেপি। তাঁকে দলের জাতীয় পরিষদের সদস্য করেছে বিজেপি। অমিত শাহ মুকুল রায়কে যথেষ্ট গুরুত্ব দেন। কিন্তুু এখনও পর্যন্ত সংঘ পরিবারে সেভাবে মুকুল রায়ের কোনও গুরুত্ব নেই। তাই রাতারাতি বিদ্যার্থী পরিষদে মুকুল ঘনিষ্ঠ বিজেপি নেতার প্রভাব বিস্তার করা যাবে না বলেই সংঘ নেতারা বার্তা দিয়েছেন।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here