ভিন রাজ্যে আটকে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরাতে উদ্যোগী  পুরুলিয়ার যুবক

সাথী প্রামানিক, পুরুলিয়া, ২৯ এপ্রিল: ভিন জেলা ও বিভিন্ন রাজ্যে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনতে প্রশাসনের দ্বারস্থ হলেন পুরুলিয়া রুদড়া গ্রামের এক যুবক। লকডাউনে জেলার কিছু যুবক কলকাতা, হাওড়া ছাড়াও গুজরাট, অন্ধ্রপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র, ঝাড়খন্ড প্রভৃতি রাজ্যের বিভিন্ন এলাকায় কর্মরত শ্রমিকরা এক প্রকার বন্দি হয়ে পড়েছেন। হাতে থাকা টাকা শেষ হয়ে গিয়েছে তাঁদের। একসময় পেটের টানে বাড়ি তথা জেলা ছাড়তে হয়েছে তাঁদের। এখন প্রায় দেড় মাসের বেশি সময় কাজ বন্ধ। উপার্জনও নেই। চরম সমস্যার মধ্যে অসহায় অবস্থায় রয়েছেন ওই পরিযায়ী শ্রমিকরা। মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন তাঁরা। গত এক মাস ধরে তাঁদের খোঁজ করে যোগাযোগ রেখে চলেছেন পুরুলিয়া-১ নম্বর ব্লকের গাড়াফুসড় পঞ্চায়েতের রুদড়া গ্রামের যুবক সমীরণ।     
সারা বছর নি:স্বার্থে ভাবে সমাজ সেবার কাজে নিজেকে যুক্ত রাখেন এই যুবক। কোভিড-১৯ নিয়ে বিভিন্ন গ্রামের প্রান্তিক মানুষকে সচেতন করছেন তিনি। সরকারি নির্দেশ গ্রামের প্রান্তরে প্রচারও করছেন তিনি। সেই থেকেই এই ব্লকের বেশ কয়েকটি গ্রামের প্রায় ২০ টি পরিযায়ী শ্রমিকের খোঁজ পান ওই যুবক। ওই শ্রমিকদের সঙ্গে যোগাযোগ করলে সমীরণ তাঁদের সমস্যা ও আর্তি জানতে পারেন। তাঁদের বাড়ি ফেরার অনুনয় উদ্বেগ করে তোলে সমীরণকে। বুধবার, তিনি জেলাশাসকের কাছে ওই পরযায়ী শ্রমিকদের জেলায় ফিরিয়ে আনার জন্য লিখিতভাবে একটি আবেদন জানান। ২০ জন শ্রমিকের আটকে থাকার ঠিকানা ও যোগাযোগ নম্বর দিয়ে ওই আবেদন পত্রটি জেলাশাসকের উদ্দেশ্যে দেন।

এদিন তিনি বলেন, ‘রাজ্য সরকার অন্যান্য জেলার পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর জন্য উদ্যোগী হওয়ার খবর পেতেই আমিও আবেদন রাখলাম আমার জেলার অসহায় শ্রমিকদের জন্য। প্রিয়জনের অসহায় অবস্থা জেনে তাঁদের বাড়ির সদস্যদের ঘুম উঠে গিয়েছে। দুশ্চিন্তা কুরে কুরে খাচ্ছে। এটা আমি পরখ করেছি ওই শ্রমিকদের বাড়ি গিয়ে। এই অসময়ে প্রশাসনিক সহযোগিতা কামনা করি।’   

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here