মান-সম্মানের টানাপোড়েন, গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী শান্তিপুর থানার বাগদিয়া গ্রামের এক যুবক

স্নেহাশীষ মুখার্জি, আমাদের ভারত, নদিয়া, ২৩ জুলাই:
ইয়ার্কির ঘটনা পৌঁছাল চরম বিবাদে। তারপর যুবককে ফেলে লাঠিপেটা। পরে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হল যুবক। ঘটনাটি নদিয়ার শান্তিপুর থানার বাগদিয়ার।

জানা যায়, নদিয়ার বাগদিয়া গ্রামে অসীম দাস নামে এক যুবক তার পাশের বাড়ির সম্পর্কে কাকার সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিল। সেখানে কথায় কথায় কাকা ভাইপোকে ইয়ার্কির ছলে বলে তোর মতন বয়সে আমার শরীর তাগড়াই ছিল। কিন্তু তোর যা চেহারা এখন যদি তোর বিয়ে দি তাহলে তুই কি করবি? উত্তরে ভাইপোও ইয়ার্কির ছলে জানায় বৌমাকে তোমার বাবার কাছে পাঠাব। পাশেই ছিল ওই কাকার এক বন্ধু সুফল বিশ্বাস। সে তার বন্ধুর অপমাণ সহ্য করতে না পেরে ভাইপো অসীম বিশ্বাসের মুখে সজোরে লাথি মারে। এরপর শুরু হয় বাদানুবাদ। রাস্তায় ফেলে অসীম বিশ্বাসকে লাঠিপেটা করে সুফল বিশ্বাস বলে অভিযোগ। এরপর বাড়িতে এসে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন বাগদিয়ার ঐ যুবক। অসীম বিশ্বাসের পরিবারের পক্ষ থেকে সুফল বিশ্বাসের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here