জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পাবেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি, সুকান্ত মজুমদারকে ঘিরে থাকবে ৩৫ জন জওয়ান

আমাদের ভারত, ২৫ সেপ্টেম্বর: দিন পাঁচেক হয়েছে রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব পেয়েছেন সুকান্ত। তার মধ্যেই তাঁর নিরাপত্তা বাড়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। এবার থেকে বিজেপির নতুন রাজ্য সভাপতি জেড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা বলয়ে বেষ্টিত থাকবেন। বালুরঘাটের সাংসদ হিসেবে তিনি এতদিন ওয়াই ক্যাটাগরির সুরক্ষা পেতেন। কিন্তু রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব পেতেই তাঁর নিরাপত্তা বাড়ানো হল।

তার সুরক্ষায় থাকবেন সিআইএসএফ এর ৩৫ জন জওয়ান। এর আগে দিলীপ ঘোষের জন্য ছিল ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তা। বিজেপি প্রাক্তন রাজ্য সভাপতির থেকে বর্তমান রাজ্য সভাপতি সুরক্ষা আরো বেশি করা হলো। রাজ্যে উপনির্বাচনে আবহে বিজেপির রাজ্য সভাপতির সুরক্ষা বাড়িয়ে দেওয়ার কথা ভাবা হয়েছে। এই প্রসঙ্গে সুকান্ত মজুমদার বলেন, “কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক মনে করেছেন যে বিপদ আরো বেশি সামনের আগামী দিনে। আরো বড় বিপদ আসতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। নিশ্চয়ই আইবির কিছু ইনপুট রয়েছে। সেই কারণে নিরাপত্তা বাড়ানো হচ্ছে। আমার অসুবিধা হবে। কারণ এখানে আসার আগেও আমি স্কুটি নিয়ে বালুরঘাটে ঘুরেছি। আগামী দিনে হয়তো একটু সমস্যা হতে পারে”

নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পরেই লাগাতার পথে নেমে আন্দোলন করতে শুরু করে দিয়েছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। বিজেপি নেতার মৃতদেহ নিয়ে কালিঘাটে বিজেপির মিছিল নিয়েও ধুন্ধুমার হয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর পালটা বাড়ির সামনে পচা কুকুর ফেলে দেওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বলে অভিযোগ। এর প্রতিবাদে আজ হাজরায় বিজেপি বিক্ষোভ দেখায়। এ প্রসঙ্গে বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার আক্রমণের সুরে বলেছিলেন, বিজেপির প্রার্থী মারা গেলেন তাঁকে পচা কুকুর বলেছেন মমতা। এটা কি বাংলার সংস্কৃতি?”

বিজেপি কর্মীর মৃত্যুর ঘটনায় দেহ নিয়ে রাস্তায় বসে পড়ার অভিযোগে বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের বিরুদ্ধে স্বতঃপ্রণোদিত মামলা রুজু করেছিল কালীঘাট থানার পুলিশ। একইসঙ্গে ভবানীপুরের বিজেপির প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল ও বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং মাহাতোর বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় ধারায় মামলা রুজু হয়েছিল। এই পরিস্থিতিতে সুকান্ত মজুমদারের নিরাপত্তা বাড়ানো সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here