শিশুকে খুন করে খালের জলে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ আমতায়

3

আমাদের ভারত, হাওড়া, ১ ফেব্রুয়ারি: রাতের অন্ধকারে ঘুমন্ত অবস্থায় পাঁচ মাসের এক শিশুকে খুন করে খালের জলে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠল দুস্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে আমতা থানার বসন্তপুরের আলতাড়া গ্রামের মহিষপাড়া গ্রামে। আমতা থানার পুলিশ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানোর পাশাপাশি একটি খুনের মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

জানাগেছে, শুক্রবার রাতে শিশুটি তার বাবা মায়ের সঙ্গে ঘুমানোর সময় রাত ২ টো নাগাদ শিশুটির মা দোলন দোলুই লক্ষ্য করেন বিছানায় শিশুটি নেই। পরে বিষয়টি তার স্বামীকে জানালে তারা লক্ষ্য করেন জানালার ইঁট নেই। এরপরেই তাদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে খোঁজাখুঁজি করলেও শিশুটিকে খুঁজে না পায় না। এরপর শনিবার সকালে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে খাল থেকে শিশুর মৃতদেহ ভাসতে দেখা যায়। এদিকে এই ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর ক্ষোভে ফেটে পড়েন স্থানীয় বাসিন্দারা। পরে তারা হাওড়া আমতা রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকে।

এদিকে এলাকায় ক্রমশ উত্তেজনা ছড়ালে আমতা থানার পাশাপাশি বিভিন্ন থানা থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে নিয়ে আসা হয়। নামানো হয় র‍্যাফ। ঘটনাস্থলে পৌঁছায় হাওড়া গ্রামীণ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আশিষ মৌর্য, উলুবেড়িয়ার এসডিপিও পার্থ ঘোষ। পরে পুলিশ মৃদু লাঠিচার্জ করে বিক্ষোভকারীদের হঠিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়।

শিশু মৃত্যুর ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, গত কয়েকদিন ধরেই এলাকায় শিশু চুরি নিয়ে একটা আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছিল। খুব সম্ভবত শুক্রবার রাতে দুস্কৃতীরা ঘুমের ওষুধ স্প্রে করে এই কান্ড ঘটিয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে হাওড়া গ্রামীণ জেলা পুলিশ সুপার সৌম্য রায় জানান, পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। সবদিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট হাতে আসার পর মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here