বনগাঁয় রেশন নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ বিজেপির

সুশান্ত ঘোষ, বনগাঁ, ১৪ এপ্রিল: গোটা দেশ জুড়ে চলছে লকডাউন। বর্তমানে ভয়াবহ পরিস্থিতি দিন আনা দিন খাওয়া মানুষদের। কিছু কিছু এলাকায় ত্রাণ মিললেও পাচ্ছে না অনেকেই। সেই সব মানুষ যাতে ন্যূনতম খাবার পান, সেই দাবি জানিয়ে উত্তর ২৪ পরগনার বিজেপি বনগাঁ পৌর মন্ডল উত্তরের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার মহকুমা শাসকের দফতরে একটি স্মারকলিপি দেওয়া হল।

বিজেপির অভিযোগ, কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার রেশন ডিলারের কাছে যে ত্রাণ পাঠাচ্ছে তা সঠিকভাবে বন্টন হচ্ছে না। রেশন বন্টন করা নিয়ে ব্যাপক দুর্নীতি করছে রেশন ডিলাররা। সেই সাথে সমস্ত রাজনৈতিক মতভেদ ভুলে গিয়ে রাজনৈতিক রঙ না দেখে সকলকে ত্রাণ পৌছবার আবেদন করা হয় ভারতীয় জনতা পার্টির পক্ষ থেকে। বনগাঁ পৌরসভার যে ৭ জন কাউন্সিলর বিজেপিতে যোগদান করেছেন তাদের যেন সরকারি ত্রাণ বন্টন থেকে বঞ্চিত করা না হয়। এই মর্মে বনগাঁ পৌর মন্ডল উত্তরের পক্ষ থেকে বনগাঁ মহকুমা শাসকের কাছে লিখিত জানানো হয়।

বিজেপি কাউন্সিলর দীপেন্দু বৈরাগীর অভিযোগ, সম্প্রতি কেন্দ্রীয় ও রাজ্য সরকার বিনামূল্যে কিছু রেশন সামগ্রী বন্টনের কথা ঘোষণা করেছে। কিন্তু রেশন ডিলাররা রেশন বন্টন নিয়ে এই দুঃসময়েও ব্যাপক দুর্নীতি ও অনিয়ম করে চলেছেন। আবার বার বার আবেদন করেও যে সকল গরিব মানুষ আজও রেশন কার্ড পাননি এবং দু-তিন মাস আগে যারা নতুন রেশন কার্ড পেয়েছেন তাঁদের কাউকেই রেশন সামগ্রী দিচ্ছেন না এই ডিলাররা। এই সংকটময় পরিস্থিতিতে হতদরিদ্র মানুষদের খাদ্য ও পুষ্টির প্রয়োজনে দলের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়।

বিজেপির বনগাঁ পৌর মন্ডল উত্তরের সভাপতি শোভন বৈদ্য বলেন, আমাদের দাবি, সরকার নির্ধারিত পরিমাণে রেশন সামগ্রী পাওয়া সুনিশ্চিত করতে হবে। দুর্নীতিগ্রস্ত ডিলারদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। যে সব গরিব মানুষ এখনও রেশন কার্ড পাননি, তাঁদের জরুরি ভিত্তিতে কুপন বা কার্ডের মাধ্যমে রেশন দিতে হবে। মহকুমা শাসক কাকলি মুখ্যপাধ্যায়, আশ্বাস দিয়ে বলেন, অভিযোগ ক্ষতিয়ে দেখা হবে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here