করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় অফিস খুলতে বাধা চাইল্ড লাইনের কর্মীদের

আমাদের ভারত, দক্ষিণ ২৪ পরগণা, ৭ আগস্ট: দক্ষিণ ২৪ পরগণার ক্যানিং চাইল্ড লাইনের এক কর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার ঐ কর্মীর কোভিড পরীক্ষার রেজাল্ট পজিটিভ আসে। বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হতেই ক্যানিংয়ের সঞ্জয়পল্লী গ্রামের কিছু মানুষজন সেই চাইল্ড লাইনের অফিস বন্ধ করে দেওয়ার জন্য হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

কার্যত অফিস বন্ধ করতে উদ্যত হয়েছেন এলাকার মানুষজন। দক্ষিণ ২৪ পরগনার ক্যানিংয়ের সঞ্জয়পল্লী গ্রামের ঘটনা। অফিস খুলতে না পেরে বিপাকে পড়েছেন এই অফিসের অন্যান্য কর্মীরা। ঘটনার জেরে কার্যত বন্ধ তাদের কাজকর্ম। এ বিষয়ে ক্যানিং থানা ও ক্যানিং মহিলা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন তারা। চাইল্ড লাইনের কর্মীদের অভিযোগ শুনে শুক্রবার সকালে এলাকার তৃণমূল নেতা তথা পঞ্চায়েত প্রতিনিধি কমলাকান্ত সাহা এসে গ্রামবাসীদের সাথে কথা বলেন। এ বিষয়ে সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন বিডিও নীলাদ্রি শেখর দে। রাজ্য সরকারের নারী ও শিশু কল্যাণ দফতরের অন্তর্ভুক্ত এই অফিস যাতে নির্বিঘ্নে চলতে পারে সে জন্য যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে।

এদিন তৃণমূল নেতারা এলাকায় এসে গ্রামের মানুষজনকে এ বিষয়ে বোঝাতে গেলে তাদের সাথে বচসায় জড়িয়ে পড়েন ঐ তৃণমূল নেতা। পরে অবশ্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপে পিছু হটেন গ্রামবাসীরা। অফিস খুলে দেওয়া হয় চাইল্ড লাইনের। বিডিও বলেন, “চাইল্ড লাইন জরুরি পরিষেবার সাথে যুক্ত। ফ্রন্ট লাইনে থেকে কাজ করতে গিয়ে তারা করোনায় আক্রান্ত হতেই পারেন, কিন্তু তার জন্য গ্রামের কিছু মানুষ তাদের অফিস বন্ধ করে দেবে সেটা ঠিক নয়। এ বিষয়ে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে”।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here