“জেএনইউতে দেশবিরোধী ও হিন্দু বিরোধী কাজ হচ্ছে, তাই মেরেছি”: দায় স্বীকার করল হিন্দু রক্ষা কমিটি

আমাদের ভারত, ৭ জানুয়ারি:জহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় হামলার দায় স্বীকার করলো হিন্দু রক্ষা দল নামে একটি সংগঠন। নিজেকে এই সংগঠনের নেতা হিসেবে দাবি করে ভূপেন্দ্র তোমর ওরফে পিংকি চৌধুরী নামে এক ব্যক্তি টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। তার দাবি জেএনইউ তে দেশবিরোধী ও হিন্দু বিরোধী কাজ কার্যকলাপ চলছে তাই আমরা মেরেছি। হিন্দু ধর্মের বিরুদ্ধে যে বা যারা কাজ করবে তাদের এই রকম পরিণতি হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি ওই ভিডিওতে।

জেএনইউতে দুষ্কৃতী হামলায় ছাত্র সংসদের নেত্রী পড়ুয়া অধ্যাপক সহ ৩৪ জন আহত। এই ঘটনার দায় স্বীকার করে ভিডিওতে পিংকি চৌধুরী নামে ওই ব্যক্তি বলছেন দেশদ্রোহী কাজকর্মের আখরা হয়ে উঠেছে জেএনইউ। আমরা আর সহ্য করতে পারছিলাম না। জেএনইউতে হামলার সম্পূর্ণ দায় আমরা নিচ্ছি। রবিবার রাতে যারা জেএনইউতে হামলা করেছে তারা আমাদেরই কর্মী বলে দাবি করেছেন তিনি।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রবিবার সন্ধ্যেবেলায় মুখ ঢেকে হামলা চালিয়েছিল একদল দুষ্কৃতী। তাদের চিহ্নিত করতে ফেস রেকগনেশন সফট্ওয়ারের সাহায্য নিচ্ছে দিল্লি পুলিশ। সেদিনের ঘটনায় একাধিক ভিডিও ও ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মাধ্যমে। তাদের হাত প্রত্যেকের হাতেই ছিল লাঠি লোহার রড হকিস্টিক।

জেএনইউ ছাত্র সংসদের নেতারা অভিযোগ এবিভিপি দুষ্কৃতীরা হামলা চালিয়েছিল। এবিভিপি এই হামলার দায় অস্বীকার করেছে। তারা এটিকে বামছাত্রদের গোষ্ঠী দ্বন্দ্ বলেছে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here