প্রজাতন্ত্র দিবসে জঙ্গি নিশানায় রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী! চাঞ্চল্যকর তথ্য গোয়েন্দা রিপোর্টে

আমাদের ভারত, ১৮ জানুয়ারি:প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপর জঙ্গি হামলার ছক কষা হয়েছে, এমনি সতর্কবার্তা দিয়েছে ভারতের নিরাপত্তা এজেন্সিগুলি। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী প্রজাতন্ত্র দিবসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং বিশিষ্ট অতিথিদের ওপর হামলার ছক কষেছে জঙ্গি সংগঠন। এমনই তথ্য হাতে এসেছে ভারতীয় গোয়েন্দাদের।

সম্প্রতি গোয়েন্দা সংস্থার তরফে ৯ পাতার রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে প্রজাতন্ত্র দিবসে উপস্থিত প্রধানমন্ত্রী এবং বিশিষ্ট অতিথি ও নেতা-মন্ত্রীদের ওপর হামলা চালানোর ছক কষেছে জঙ্গিরা। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন কাজাখস্থান, কিরগিস্থান, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান এবং উজবেকিস্তান থেকে বিশিষ্ট অতিথিরা উপস্থিত থাকতে চলেছেন। জানা গিয়েছে পাকিস্তান, আফগানিস্তান-পাকিস্তান সীমান্তে অবস্থিত জঙ্গিগোষ্ঠী এই হামলার ছক কষেছে। তাদের লক্ষ্য যেখানে অতিথিদের সমাগম থাকবে বা জনবহুল এলাকায় হামলা চালানো।

ড্রোন ব্যবহার করে হামলা করা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। এখনো পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী লস্কর ই তৈবা, রেজিস্ট্যান্স ফোর্স, জইশ-ই-মহম্মদ, হরকত উল মুজাহিদিন এবং হিজবুল মুজাহিদিনের মত জঙ্গি সংগঠনগুলো এই হামলার ছক কষে থাকতে পারে।

গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্ট জানাচ্ছে, পাকিস্থানে অবস্থিত খালিস্তানি জঙ্গিরা পাঞ্জাবে হামলা করার ছক কষছে। তবে শুধু যে পাঞ্জাব তাদের নিশানায় রয়েছে তা নয়, বিভিন্ন রাজ্যেও তারা হামলা চালাতে পারে।

২০২১ সালে পাওয়া তথ্য অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সভাস্থলে এবং তিনি যে এলাকা পরিদর্শন করছেন সেখানে জঙ্গি হামলার পরিকল্পনা করেছে খালিস্তানি জঙ্গিরা। কিছু দিনের মধ্যেই দেশে পাঁচ রাজ্যে নির্বাচন, তার আগে ভারতে প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক পাঠিয়ে অশান্তি পাকাতে চাইছে পাকিস্তান। গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্টে জানা গিয়েছিল, শুধু অস্ত্র নয়, মাদক পাচারের রাস্তা ব্যবহার করে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক ছড়িয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে পাকিস্তানের জঙ্গিরা। কয়েক মাস আগেই পাঞ্জাবে প্রচুর পরিমাণ বিস্ফোরক উদ্ধার হয়।১০০টি গ্রেনেড, ২০টি আই ইডি, ৫-৬ কেজি বিস্ফোরক। অন্যদিকে গত সপ্তাহে দিল্লি গাজীপুরের ফুলের বাজার থেকে প্রচুর পরিমাণে আরডিএক্স নিষ্ক্রিয় করেছে পুলিশ।
প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে এই সব একের পর এক ঘটনাগুলি চিন্তার ভাঁজ ফেলেছে গোয়েন্দাদের কপালে।

আপনাদের মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here