“মন্দির ভেঙে আবার মসজিদ তৈরি হবে”, হুমকি ইমাম অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতির

আমাদের ভারত, ৬ আগস্ট: রাম মন্দিরের ভূমি পূজার ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই মন্দির ভেঙে মসজিদ তৈরীর হুমকি দিয়ে দিয়েছেন অল ইন্ডিয়া ইমাম অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি সাজিদ রাশিদি। তার স্পষ্ট বক্তব্য অযোধ্যায় কোনো দিন রামমন্দির ছিল না। ফলে সেখানে মন্দির ভেঙে মসজিদ তৈরি হয়নি। মসজিদ ভেঙে মন্দির তৈরির চেষ্টা চলছে। এরপর একরকম হুমকির সুরেই তিনি বলেছেন, রাম মন্দির ভেঙে ভবিষ্যতে মসজিদ তৈরি করা হবে।

এর আগে পুজোর দিন অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছিল, অযোধ্যায় মসজিদ ছিল আছে থাকবে। রামের মূর্তি বসিয়ে দিলেই মসজিদকে মন্দিরে রূপান্তর করা যায় না। এবার অল ইন্ডিয়া ইমাম অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান সাজিদ রাশিদি প্রকাশ্যে হুমকি দিলেন। রাম মন্দির ভেঙে ভবিষ্যতে মসজিদ তৈরি করা হবে অযোধ্যায়।

তিনি আরো বলেন, বিতর্কিত ওই জমিতে কোনদিনই মন্দির ছিল না। তাই মন্দির ভেঙে বাবরি মসজিদ করার কোন প্রশ্নই ছিল না। আর মসজিদ ভেঙ্গে মন্দির হয়েছে। রাশিদি বলেছেন, ” ইসলাম বলেছে মসজিদ সবসময় মসজিদই থাকে। অন্য কিছু তৈরীর জন্য মসজিদ ভাঙা যায় না। আমরা মনে করি ওই জায়গায় বাবরি মসজিদ ছিল আর মসজিদে থাকবে। মন্দির ভেঙে কখনো ওখানে মসজিদ তৈরি হয়নি। কিন্তু এবার সেরকম কিছু হতেই পারে। মন্দির ভেঙে ওই জমিতে আবার মসজিদ নির্মাণ করা হতে পারে”।

রাশিদির এই হুমকির পরেই বিতর্কের ঝড় উঠেছে। রাম মন্দির নির্মাণের জন্য ভূমি পুজোর পর থেকেই একের পর এক মুসলিম সংগঠনের তরফে একের পর এক হুমকি আসছে। মা চুড়ান্ত বিতর্ক সৃষ্টি করেছে। গত বছর নভেম্বরে অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির নির্মাণের রায় দিয়েছিল দেশের শীর্ষ আদালত। ২.৭৭ একর জমি মন্দির নির্মাণের জন্য বরাদ্দ করে আদালত। একইসঙ্গে উত্তরপ্রদেশ সরকারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল মসজিদ নির্মাণের জন্য জমি দেওয়ার।

রাশিদি এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকেও কটাক্ষ করে বলেছেন, রাম মন্দিরের ভূমি পুজোয় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী সংবিধানের অবমাননা করেছেন।

তবে যাবতীয় বিতর্ক এর মধ্যেই রামমন্দির নির্মাণের কাজ এবার শুরু হবে। রাম মন্দির নির্মাণ হতে তিন থেকে সাড়ে তিন বছর সময় লাগতে পারে বলে জানা গেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here